সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসা খরচ – বেতন কত?

সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসা নিয়ে আজকের এই পোস্টে আপনাকে স্বাগতম। আপনি যদি সিঙ্গাপুর যেতে চান এবং বেশি বেতনে হোটেলের কাজে যেতে চান তাহলে আপনার জন্য এই পোস্টটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এই লেখাটি পড়ে আপনি খুব সহজেই জানতে পারবেন আবেদন কিভাবে সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসার জন্য করতে হয় ও সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসা খরচ কত ও বেতন কত পাবেন এই নিয়ে বিস্তারিত এখানে জানিয়ে দেওয়া হবে।

সিঙ্গাপুরের প্রথম দিকে হোটেলের ভিসা না দিলেও বর্তমানে হোটেলের ভিসা দিচ্ছে। প্রাথমিক দিকে শুধু সিঙ্গাপুরিয়ান লোকেরাই হোটেলের ভিসায় কাজ করতে পারতো অন্য কোন লোক নেওয়া হতো না। তবে বর্তমান সময়ে ইংরেজি দক্ষতা দেখাতে পারলে সিঙ্গাপুরে আপনিও হোটেলের ভিসা পাবেন।

সিঙ্গাপুরে হোটেলের কাজের জন্য প্রতিবছর অন্যান্য দেশ থেকে শ্রমিক নিয়োগ দিলেও বর্তমানে বাংলাদেশীদের জন্য হোটেলের কাজ উন্মুক্ত করা হয়েছে। কিভাবে হোটেলের ভিসা পাবেন ও হোটেলের ভিসার জন্য আপনাকে কত টাকা গুনতে হবে জেনে নিন।

সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসা

পূর্ববর্তী সময়ে বাংলাদেশ, ইন্ডিয়া ও পাকিস্তানের লোকদের হোটেলের ভিসা দেওয়া হতো না। বর্তমানে হোটেলে কাজের জন্য নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে নতুন শ্রমিক। সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসা পেতে হলে আপনাকে অবশ্যই ইংরেজদের ভাল দক্ষতা থাকতে হবে এবং ইংরেজি ভাষার ওপর সার্টিফিকেট দেখাতে পারলে খুব সহজেই সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসা পেয়ে যাবেন।

হোটেল ভিসার মধ্য বিভিন্ন ধরনের কাজ রয়েছে যেমন খাবার সার্ভ করা, কেয়ারটেকার, রাঁধুনি, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন কর্মীসহ আরো বিভিন্ন ধরনের কাজ রয়েছে হোটেল ভিসার মধ্য। বেশি টাকা ইনকাম করতে চাইলে সিঙ্গাপুরে হোটেল ভিসার আবেদন করতে পারেন।

সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসা খরচ

বর্তমান সময়ের সিঙ্গাপুরে হোটেল ভিসার জন্য খরচ সব মিলিয়ে ৭ থেকে ৮ লক্ষ টাকা। হোটেল ভিসা খরচের মধ্য আপনার প্লেন ভাড়া ও বিমান টিকেট সহ ধরে নেওয়া হবে।

তবে, এখানে টাকার মূল্য আরো কমবেশি হতে পারে। সিঙ্গাপুরের টাকার মান বর্তমানে অনেক বাড়তি তাই ডলার মান বাড়ার সাথে সাথে টাকার পরিমাণ বেড়ে যায়। তাই নির্দিষ্ট ভাবে হোটেল ভিসার খরচ কত হবে এটা বলা সম্ভব নয়। তবে উপরে দেওয়া টাকার পরিমানের আশেপাশে হবে।

আপনি এত টাকা খরচ করে হোটেল বিষয়ে যাবেন তাহলে কি কি পেতে পারেন সেই সম্পর্কে এখন বিস্তারিত জানাবো। সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসা অনেক দামি ভিসা যেতে হলে আপনাকে বাড়তে টাকা গুনতে হবে এটাই স্বাভাবিক। সিঙ্গাপুর সরকার থেকে অন্যান্য দেশের লোককে হোটেল ভিসা এবং সরকারি কাজের জন্য নেওয়া বৈধ নয়।

তবে সাম্প্রতিক সময়ে সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসার মাধ্যমে শ্রমিক নিয়োগ দেওয়া হবে। এখানে উল্লেখ নেই কোন দেশের লোক নিয়োগ হতে পারবে না। তাই বলা যায় সিঙ্গাপুরে যদি আপনার ভালো ইংরেজি দক্ষতা থাকে তাহলে অবশ্যই আপনি হোটেল ভিসা পেয়ে যাবেন।

সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসা বেতন কত

সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসার বেতন বাংলাদেশি টাকায় ৮০ থেকে ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকার আশেপাশে হবে। এখানে শুধু খাবার সার্ব ও পরিষ্কার করে রাখার বেতনের কথা বলা হয়েছে। তবে আপনার রান্নার দক্ষতা থাকলে ও ভালো ইংরেজি জানার মাধ্যমে খাবার পরিবেশন করার দক্ষতা থাকলে আরো বেশি বেতন দেওয়া হবে।

সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসার মধ্যে আরো কিছু ভিসা রয়েছে যেগুলো খুব সহজ কাজ। যেমন পর্যটনদের লাগেজ ও ব্যাগ গুছিয়ে রাখা, প্রতিটা রুমে ঝাড়ু দেওয়া ও বিছানা ঠিক করা সহ আরো বিভিন্ন কাজ রয়েছে। এছাড়াও এই হোটেলের কাজে আপনি আরো বাড়তে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

সিঙ্গাপুরের অনেক টুরিস্ট বেড়াতে আসে। যখন কোন হোটেলে উঠে তখন ওই হোটেলের লোকের সাথে ভালোভাবে পরিচিত হলে যাওয়ার সময় টিপস টিপস হিসেবে ডলার দিয়ে থাকে। আপনি টিপস পাবার মাধ্যমে আরো বেশি টাকা আয় করতে পারবেন।

সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসায় যাওয়ার উপায়

সিঙ্গাপুরের হোটেল ভিসার আইপিএ করতে হলে আপনাকে সিঙ্গাপুর সরকারি মম ওয়েবসাইট থেকে ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে। তবে আপনি যদি সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসা সম্পর্কে না জেনে থাকেন তাহলে বিভিন্ন এজেন্ট ও সিঙ্গাপুরে রয়েছে এরকম ভাই ব্রাদার কে বলতে পারেন।

আপনার দক্ষতা ও সার্টিফিকেট দেখিয়ে হোটেলের বিভিন্ন ভিসা আবেদন করার মাধ্যমে আপনাকে হোটেলের ভিসা দিতে পারবে। সিঙ্গাপুরে বেশি টাকা ইনকাম করতে হলে নিজেকে ডেভেলপমেন্ট করতে হবে এবং সার্টিফিকেট অর্জন করতে হবে। শুধু ইংরেজিতে ভালো দক্ষতা হলেই চলবে না আরো কাজের দক্ষতা না থাকলে আপনাকে হোটেল ভিসা দেওয়া হবে না তাই আপনার দুই এক বছরের দক্ষতা আছে এরকম কিছু বলে আবেদন করতে হবে।

হোটেল ভিসায় বিভিন্ন কাজ থাকলেও খাবার সার্ভ করা ও ক্লিনিং করা কাজটি সবচেয়ে সহজ। এই সকল কাজে বেতন অনেক বেশি দিয়ে থাকে। তাই বর্তমানে সবাই সিঙ্গাপুর যাওয়ার জন্য হোটেল ভিসা খুঁজে থাকে। তবে হোটেল ভিসা পাওয়া এতটা সহজ নয় যতটা আপনি ভাবছেন।

সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসা পেতে হলে যার মাধ্যমে আবেদন করবেন তাকে অবশ্যই সিঙ্গাপুর প্রবাসী হতে হবে। অথবা বড় ধরনের সিঙ্গাপুর এজেন্ট হতে হবে। একটি বিষয় বলা উচিত, সিঙ্গাপুরের হোটেল ভিসা জন্য আবেদন করলে আপনি তার থেকে আবেদন করার স্লিপ নিয়ে নিবেন।

সিঙ্গাপুর মম ওয়েবসাইট থেকে আপনি খুব সহজেই দেখে নিতে পারবেন আপনার বর্তমান আইপিএ অবস্থা কেমন ও আপনি সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসা পেয়েছেন কিনা। সিঙ্গাপুর হোটেল ভিসা ও কাজের ভিসা চেক করার পদ্ধতি জানার জন্য এখানে দেখতে পারবেন।

Leave a Reply - Backlink not allowed