মিথ্যা মানুষকে ধ্বংস করে দেয় কেন

কথায় আছে মিথ্যা মানুষকে ধ্বংস করে। এই কথাটির যথার্থ মূল্যায়ন রয়েছে আমরা যদি একটি মিথ্যা কথা বলি এই একটি মিথ্যা কথাকে সত্য বানাতে আমাদের আরো হাজারটি মিথ্যা কথা বলা প্রয়োজন হয়। এতগুলো মিথ্যা কথা বলার পর সেই মিথ্যা কথাটা আর মিথ্যা থাকে না। সত্য বলে বিবেচিত হয়। আবার কখনো কখনো সেই মিথ্যায় মানুষকে ধ্বংসের পথে ঠেলে দেয়।

মানুষ কর্মজীবনে ও বাস্তব জীবনে নিজের স্বার্থের আশায় মিথ্যা বলতে একটু দ্বিধাবোধ করে না। তবে আমরা যতই মিথ্যা কথা বলি না কেন প্রতিটা মিথ্যার জন্যই রয়েছে শাস্তি। আমরা হয়তো ইহকালে মিথ্যা কথা বলে জীবন সাধন করতে পারলেও পরকালে নিজের জন্য পাপের মাধ্যমে জাহান্নাম তৈরি করছি।

মিথ্যা কথা বলে স্বার্থ হাসিল হলেও, জীবনের কিছু জায়গায় মিথ্যা কথা কোন কাজে লাগে না। একবার যদি আপনার মিথ্যা কথা ধরা পড়ে যায় তাহলে আপনি আর কখনো সহজে কারো কাছে বিশ্বস্ত হতে পারবেন না। তাই কখনো এমন কোন মিথ্যা কথা বলবেন না যাতে কারো সামনে আপনার লজ্জাবোধ করতে হয়।

আল্লাহ তাআলা বলেছেন মিথ্যাবাদের জন্য অবশ্যই শাস্তি রয়েছে তবে যে সকল মিথ্যা গীবত করার জন্য হয় সে সকল ব্যক্তিদের অবশ্যই মৃত ভাইয়ের মাংস খাওয়ানো হবে। মিথ্যা বলার অনেকগুলো কুফল রয়েছে যেগুলো আমাদের বাস্তব জীবনে পরিলক্ষিত হয় এবং আমরা বিশেষভাবে অপমানিত হই।

আপনি যখন কারো সাথে মিথ্যা কথা বলেন, এবং তা পরবর্তীতে প্রকাশ পাওয়ার মাধ্যমে আপনি মিথ্যা কথা বলেছেন এরকম প্রকাশ পায় তাহলে আপনার জন্য বেশ লজ্জা জনক একটি পরিস্থিতি তৈরি হয় এটি শুধু আপনার বাস্তব জীবনের প্রভাব ফেলবে না বরং আপনার ভবিষ্যৎ ও ফ্যামিলির উপর চাপ পড়বে।

মিথ্যাবাদীকে কখনোই মানুষ দেখতে পারেনা তাই মিথ্যা একটি সমাজে চরম বৈষম্যের শামিল সৃষ্টি করে। প্রকৃত কথা হল মিথ্যাবাদী কখনোই অন্যের উপকার করতে চায় না পরক্ষণে তার নিজের অপকার করে ফেলে। এমন মানুষকে এড়িয়ে চলা উচিত যাকে সবাই মিথ্যাবাদী বলে চিহ্নিত করে।

মিথ্যা মানুষকে ধ্বংস করে আর এই মিথ্যাই মানুষকে তার জীবনের সবকিছু পেতে সাহায্য করে তবে এখানে আপনাকে বুঝতে হবে কিছু জায়গায় রয়েছে যে জায়গাগুলোতে মিথ্যা কথা বলা ছাড় দেওয়া হয়েছে যেমন কোন ব্যক্তির সাথে অপর ব্যক্তির ঝগড়া লেগেছে এমন অবস্থায় মিথ্যা বলে ঝগড়া সংশোধন করা জায়েজ রয়েছে।

মিথ্যা কথা বলার মাধ্যমে সবচেয়ে কাছের এবং ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক শেষ হয়ে যায়। কখনো একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধা না করলে এবং মিথ্যার ধারা অপরকে বুঝিয়ে রাখার চেষ্টা করলে তাদের মধ্যেই এরকম প্রতিক্রিয়া বেশি দেখা দেয় এবং মিথ্যা কথার বলার মাধ্যমে তাদের জীবনের সবচেয়ে বড় ভয়াবহতা অর্থাৎ বিচ্ছেদ তৈরি হয়। আর তা থেকেই জীবনে কালো মেঘ নিয়ে মাসে এবং মিথ্যা মানুষের জীবনকে ধ্বংস করে দেয়।

মিথ্যা কথা বলা মহাপাপ আর এই পাপটি থেকে বেঁচে থাকার জন্য আমাদের চেষ্টা করা উচিত। কিভাবে এই মিথ্যা বলা মহাপাপ থেকে বেঁচে থাকবেন এর জন্য আপনাকে অবশ্যই চেষ্টা করতে হবে এবং সর্বদাই সবার সাথে এমন আচরণ করতে হবে যাতে সবাই বুঝতে পারে আপনি তাদের প্রতি কোন অসম্মান করছেন না

মিথ্যা কথা বলা শুধু জীবনকে ধ্বংস করেই দেয় না বরং জীবনের সবকিছু কেড়ে নেয় তাই এই মিথ্যা কথা বলা আমাদের জন্য মোটেও কাম্য নয়। মানুষ বেশিরভাগ মিথ্যা কথা বলে আপন জনের সাথে তাই আপন জনের মধ্যে এমন কেউ মিথ্যা কথা বলে তার থেকে অবশ্যই দূরে থাকা উচিত।

মিথ্যাবাদী কখনোই আপনার ক্ষতি করতে একটু পিছপা করবে না তাই জীবনে চলতে হলে মিথ্যাবাদীকে এড়িয়ে চলতে হবে এবং নিজেও মিথ্যা কথা বলবেন না এরকম প্রতিজ্ঞা অবলম্বন করেই জীবনে চলা উচিত। আর হ্যাঁ মিথ্যা অবশ্যই মানুষের জীবনকে ধ্বংস করে দেয় তাই নিজের জীবন ধ্বংস না করতে চাইলে মিথ্যা কথা বলা যাবে না।

Leave a Reply - Backlink not allowed